সুনামগঞ্জের শাল্লায় হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে বিএনপি’র প্রতিনিধি দল ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে আর্থিক সহায়তা

প্রকাশিত: ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০২১

সুনামগঞ্জের শাল্লায় ফেইসবুকে পোস্ট দেয়াকে কেন্দ্র করে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হামলা হামলা, লুটপাত ও ভাংচুরের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় একটি প্রতিনিধি দল। এ সময় প্রতিনিধি দল ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে আর্থিক সহায়তা তুলে দেন।
শনিবার বেলা ১২টায় বিএনপি’র পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরীর নেতৃত্বে থেকে একটি প্রতিনিধি দল ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন। এসময় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের হাতে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে ১ লক্ষ ২০হাজার টাকা তুলে দেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র নির্বাহী সদস্য নিপুন রায় চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক সাংসদ কলিম উদ্দিন আহমেদ মিলন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুল, জেলা বিএনপির জেলা বিএনপির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক অশোক তালুকদার,উপদেষ্টা এড. পাভেল চৌধুরী, জেলা বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মঈন উদ্দিন চৌধুরী’ শাল্লা উপজেলা বিএনপির সভাপতি গনেন্দ্রে দাস,সাধারন সম্পাদক মো. আওয়াল মিয়া,জেলা যুবদলের সভাপতি আবুল মনসুর মো.শওকত,সাধারন সম্পাদক এড, কয়েছ,যুগ্ম সম্পাদক মমিনুল হক কালারচান,সাংগঠনিক কামরুল হাসান রাজু,পৌর যুবদলের আহবায়ক আজিজুল রহমান সৌরভ,জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শামছুজ্জামান,সাধারন সম্পাদক মনাজ্জির হোসেন,সহ সভাপতি সুহেল মিয়া,সজিব রশিদ চৌধুরী, সহ সাধারন সম্পাদক মহিম উদ্দিন,ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রায়হান উদ্দিন,জেলা ছাত্রদলের আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম,শাল্লা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আব্দুল মজিদ,দিরাই পোর স্বেচ্ছাসেবক সাধারণ সম্পাদক গুলজার চৌধুরী, মেহেদী হাসান চৌধুরী প্রমুখ।
এ সময় কেন্দ্রীয় বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী জানান, এই সরকার যখনই ক্ষমতায় এসেছে তখনই সংখ্যালঘুদের উপর হামলা হয়েছে। এই সরকারের আমলেই রামুতে হামলা হয়েছে। এই বার সুনামগঞ্জে একই ভাবে হামলা হয়েছে। এই সরকারের আমলে মানুষের বাড়িঘর, জমিজমা দলখ করা হয়েছে। আর এই ঘটনাগুলি এইজন্যই হচ্ছে কারণ এই সরকার প্রকৃতভাবে জনগণের সরকার না, এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি, এরা রাতের বেলা অর্ধেক ভোট দিয়ে দিনের বেলা নির্বাচিত হয়। আ.লীগ সরকার গণবিছিন্ন সরকার এবং গণবিছিন্ন সরকার সব সময় দুর্বল থাকে তাই দুর্বল সরকারকে সবল ভাবে টিকে থাকতে হলে তাকে বল প্রয়োগ করতে হয়। রাষ্ট্রযন্ত্রের মাধ্যমে। তাই বল প্রয়োগ করতে গিয়ে আরো বেশী গণবিছিন্ন হয়ে পড়েছে। এই কারণেই এই ঘটনাগুলি ঘটছে।