বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতা  কারীগণ ভাস্কর্য আর মূর্তির মধ্যে পার্থক্য বুঝতে ব্যর্থ- তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৫:৩৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০২০

সিলেট টাইমস ডেস্ক: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধীতাকারীরা ভাস্কর্য ও মূর্তির পার্থক্য বুঝতে ব্যর্থ হয়েছেন জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘তাদের খুব বেশি গুরুত্ব দিয়ে দেখার প্রয়োজন আছে বলে আমরা মনে করি না।’

রোববার (১৫ নভেম্বর) সচিবালয়ে তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এ কথা বলেন।

ধোলাইপাড়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করছে কয়েকটি ইসলামি সংগঠন- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘ভাস্কর্য ও মূর্তির মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে। ইরাক, ইরান, লেবানন, সিরিয়া, তুরস্ক, ফিলিস্তিনসহ বিভিন্ন দেশে বহু ভাস্কর্য আছে। যারা এই ধরনের কথা বলে তারা ভাস্কর্য আর মূর্তির মধ্যে পার্থক্য বুঝতে ব্যর্থ হয়েছেন। আমি আশা করব তারা এই পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন।’

তারা মূর্তি ভেঙে ফেলার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন- এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশে কেউ যদি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালানোর চেষ্টা করে জনগণ তাদের প্রতিহত করবে।’

হাছান মাহমুদ আরও বলেন, ‘যারা (বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে) প্রশ্ন তুলেছে তারা ক্ষুদ্র একটি অংশ, এটিকে খুব বেশি গুরুত্ব দিয়ে দেখার প্রয়োজন আছে বলে আমরা মনে করি না।’

বিভিন্ন স্থানে উপ-নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা মহামারির মধ্যে পৃথিবীর যেখানেই ভোট হচ্ছে সেখানে ভোটার উপস্থিতি কম। আমাদের দেশে এই পরিস্থিতিতে ভোটার উপস্থিতি কম হবে, এটাই স্বাভাবিক। ভোটার উপস্থিতি কম, ভোটার টার্ন আউট কম- এটিতেই প্রমাণ হচ্ছে সুষ্ঠ ভোট হয়েছে। সুষ্ঠ ভোট না হলে তাহলে ভোটার টার্ন আউট অনেক বেশি হত। যারা ভোট দিতে গিয়েছে তারাই শুধু ভোট দিয়েছে। এজন্য ভোট কম পড়েছে।’

বিএনপি জয়লাভের উদ্দেশে ঢাকা-১৮ উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেনি জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘প্রথম দিন থেকেই তারা অভিযোগের বাক্স নিয়ে বসেছিল। দুটি উদ্দেশে তারা নির্বাচনে অংশ নিয়েছে, একটি ও প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করা, দ্বিতীয় উদ্দেশ্য হচ্ছে দলকে টিকিয়ে রাখা। তাদের অভিযোগ তথাকথিত। সব নির্বাচনের সময় তারা এই অভিযোগ করে থাকে।’