জুম কলে বিয়ে, থাকলো না সরকারি বিধিনিষেধ

প্রকাশিত: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০২০

সিলেট টাইমস ডেস্ক: করোনা মহামারির কারণে মানুষ বাধ্য হচ্ছে ঘরের চার দেয়ালের মধ্যে নিউ-নর্ম্যাল জীবনযাত্রায় অভ্যস্থ হতে। লকডাউন, বিধি-নিষেধের কারণে সামাজিত মেলামেশা বাঁধা হয়ে দাঁড়ালেও মনের টান থাকলে যে সব প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করা যায়, তা প্রমাণ করলেন স্কট মারমন এবং অগাস্টিনা মন্টেফিওরি।

তারা হলেন বিশ্বের প্রথম দম্পতি, যাদের বিয়ে হল অনলাইন ভার্চুয়াল মিটিং প্ল্যাটফর্ম ‘জুম’ কলের মাধ্যমে। স্কট থাকেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে। ৬ হাজার মাইল দূরে আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস আয়ার্সের বাসিন্দা অগাস্টিনার সঙ্গে তাদের ১৯ ঘণ্টার ম্যারাথন জুম কল মিটিং-এ ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন বিশ্বের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা বন্ধুরা। ২০১৭ সালে ডেনভারে একটি কালচারাল এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামে প্রথম দেখা দু’জনের। সময়ের সঙ্গেই বেড়েছিল বন্ধুত্ব। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে স্কট যখন আর্জেন্তিনায় এসে ‘প্রোপোজ’ করেন অগাস্টিনাকে, তখনও তারা জানতেন না, করোনা মহামারি কী ভাবে তাদের এতদিন দূরে সরিয়ে রাখবে।

ঠিক হয়, ২০২০ সালের মার্চ মাসে বিয়ে করবেন তারা। সে সময় নিউ ইয়র্কের থেকে বুয়েনস আয়ার্সেই চলে আসবেন স্কট। বিমান টিকিটও কেটে ফেলেন ২২ মার্চের। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে ১৪ মার্চ থেকে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়ে যাওয়ায় দু’জনের দেখা হওয়ার সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়। দীর্ঘ লকডাউন শেষে বিমান চলাচল শুরু হলেও স্কটকে ভিসা দিতে অস্বীকার করছিল আর্জেন্টিনা, এই কারণ দেখিয়ে, যে করোনার কারণে কোনও পর্যটককে অন্য দেশ থেকে আসার অনুমতি দেয়া হচ্ছে না। যেহেতু তারা বিবাহিত দম্পতি নন, তাই স্কটকে সেদেশে ঢোকার অনুমতি দেয়া যাবে না।

কয়েক মাস এ ভাবে দোলাচলের পর প্রযুক্তিই পথ দেখাল দু’জনকে। শর্তসাপেক্ষে অনলাইন ভার্চুয়াল বিয়েতে সরকারি ছাড়পত্র মেলে। সে সব মেনেই অবশেষে চার হাত এক হল। মার্কিন এবং আর্জেন্টিনার সরকারের পক্ষ থেকেও জানানো হয়েছে, এ বার আর ভিসা পাওয়ায় সরকারি বিধিনিষেধ কার্যকরী হবে না। ৬৫০ ইউরোর বিনিময়ে ‘ফ্যামিলি রিইউনিফিকেশন ভিসা’র জন্য আবেদন করতে পারবেন স্কট। যা হাতে পেলেই স্ত্রীর কাছে যেতে বিমানে উঠে পড়তে পারবেন তিনি। যে উদাহরণ আগামী দিনে আরও অনেকের ‘দূরত্ব’ মুছে দিতে পারবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।