যানবাহন চলাচলের সড়ক যেন মরণ ফাঁদ

প্রকাশিত: ১:২৩ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ বিভাগীয় শহর সিলেটের সাথে জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-সিলেট সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও খামখেয়ালি সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলাবাসী দীর্ঘদিন ধরে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। যোগাযোগের প্রধান অবলম্বন জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-সিলেট সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বারবার সড়ক সংস্কারের দাবিতে এলাকাবাসী ও পরিবহন মালিক শ্রমিকরা ধর্মঘট করলেও কাজ হয়নি।

এ পর্যন্ত ৮ম বারের মতো এই সড়ক সংস্কারের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট ডাকলেও কোনো কাজ না হওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বেহাল এই সড়কটিতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ না হওয়ায় বড় বড় গর্ত হয়ে সড়কটি বর্তমানে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। বড় বড় গর্তে গাড়ি উলটে খাদে পড়ে একাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। ইতিমধ্যে সড়কের গর্তে পড়ে ১ট ডেলিভারির ঘটনা ঘটেছে। দীর্ঘদিন ধরে এলাকার মানুষ চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ।

সিলেট বিভাগীয় শহরসহ রাজধানী ঢাকার সঙ্গে জগন্নাথপুর ও সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার কয়েকলাখ মানুষ এই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে আসছেন।জগন্নাথপুর উপজেলা পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি নিজামুল করিম বলেন, জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি সংস্কারের অভাবে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সংস্কারের দাবিতে আমরা একাধিকবার পরিবহন ধর্মঘট করলেও আমাদের কথা কেউ শুনছে না। সংস্কারের আশ্বাসে কর্মসূচি বারবার প্রত্যাহার করা হয়েছে। বিগত বছর ইটের সুরকি দিয়ে নিম্ন মানের কাজ করা সড়কটির পিচ ঢালাই উঠে বর্তমানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে।

জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ পর্যন্ত প্রায় ৩০ কিলোমিটার সড়কটি বর্তমানে যানবাহন চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। জগন্নাথপুর উপজেলাবাসী নিরুপায় হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জীবন জীবিকার তাগিদে সিলেট শহরে প্রতিনিয়ত যাতাযাত করছেন।
এই উপজেলার উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মানুষ সিলেটে ব্যবসা-বাণিজ্য করছেন এবং একটি বড় অংশই সিলেট শহরে বসবাস করেন।