রায়হান হত্যা: আদালতে ৩ পুলিশ সদস্যের জবানবন্দি

প্রকাশিত: ১০:৪৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টারঃ বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান নিহতের ঘটনায় ৩ পুলিশ সদস্যদের ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন ।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) দুপুর ৩টা থেকে অতিরিক্ত চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিচারক মো জিহাদুুর রহমানের আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন কনষ্টেবল দেলোয়ার, সাইদুর ও শরীফ ।

রায়হানকে নির্যাতনের ঘটনার সময় ওই তিন পুলিশ সদস্য ফাঁড়িতেই ছিলেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে সোমবার দুপুরে তাদের আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মাহিদুল ইসলাম। পরে তারা স্বেচ্ছায় ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ১৬৪ ধারায় সাক্ষী হিসেবে জবানবন্দি দেন। বিকেল পৌনে ৫টায় জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তারা আদালত থেকে নিজ নিজ কর্মস্থলে চলে যান।

সিলেট মহানগর পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) অমূল্য ভূষণ চৌধুরী তিন পুলিশ সদস্যের সাক্ষী হিসেবে জবানবন্দি দেয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে তারা আদালতে কী বলেছেন এবং কারও নাম বলেছেন কি-না এ ব্যাপারে কিছু জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, গত ১১ অক্টোবর (শনিবার দিবাগত রাতে) বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনের শিকার হন রায়হান আহমদ (৩৪)। পরে রোববার সকালে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে তিনি মারা যান। রায়হান সিলেট নগরীর আখালিয়ার নেহারিপাড়ার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি নগরীর রিকাবিবাজার স্টেডিয়াম মার্কেটে এক চিকিৎসকের চেম্বারে কাজ করতেন।

এই ঘটনায় সোমবার (১২ অক্টোবর) রাত আড়াইটার সময় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে সিলেট কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন রায়হানের স্ত্রী।

রায়হান নিহতের ঘটনায় ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূইয়া, কনস্টেবল হারুনুর রশিদ, তৌহিদ মিয়া ও টিটুচন্দ্র দাসকে সাময়িক বরখাস্ত এবং এএসআই আশেক এলাহী, এএসআই কুতুব আলী ও কনস্টেবল সজিব হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়।